একাকিত্বে ভোগা কাভানের মুক্তি

ডক্টর খলিল যখন প্রথম মারজাঘার চিড়িয়াখানায় কাভানকে দেখেন কাভান ছিল হতাশাগ্রস্থ, ভীষণ জেদি এবং অস্বাভাবিক রকমের মোটা। তাঁর চামড়া ছিল জীর্ণ, পায়ের নখ গুলো ভাঙা, পুরো শরীরে অবহেলা এবং অযত্নের ছাপ। তাকে...